রাজনীতি

আস্থার দৃষ্টিকোণ থেকে নয় , প্রমানের ভিত্তিতেই বিতর্কিত জমি রামলালার


ওয়েব ডেস্ক ৯ই নভেম্বর ২০১৯: দীর্ঘ দিনের ডেটের পর ডেট চলতে থাকার পর অবশেষে সুপ্রিম কোর্ট অযোদ্ধা মামলার রায় শোনাল । অবসান ঘটাল দীর্ঘ দিনের  প্রতীক্ষার । রায়ে বলা হয়েছে, অযোধ্যার বিতর্কিত জমি পাচ্ছেন হিন্দুরাই। এর ফলে সেখানে তৈরি হবে রামমন্দির। আর বিকল্প জমি দেয়া হবে মুসলিমদের।ভারতের প্রধান বিচারপতি ছাড়াও বেঞ্চে রয়েছেন বিচারপতি এসএ বোবদে, ডিওয়াই চন্দ্রচূড়, অশোক ভূষণ এবং এস আব্দুল নাজির।

শনিবার সকালে শীর্ষ আদালতের এক নম্বর ঘরে রায় ঘোষণা করা হয়। স্থানীয় সময় ১০টা ১৫ মিনিটে সেই ঘর খুলে দেওয়া হয়। তারপর বিচারপতিরা সেই ঘরে প্রবেশ করেন। এরপর রায়ের কপিতে সই করে রায় পড়তে শুরু করেন প্রধান বিচারপতি। এর আগে শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের আর্জি খারিজ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। একই সঙ্গে নির্মোহী আখড়ার আর্জিও খারিজ করেন বিচারপতিরা।বাবরি মসজিদের জায়গায় মন্দির স্থাপনের পক্ষে রায় দিয়েছে আদালত। এজন্য আগামী ৩-৪ মাসের মধ্যে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে বিশেষ স্কিম তৈরি করার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। যাতে বিতর্কিত বাবরি মসজিদের জমি মন্দির পক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হয়। অন্যদিকে বিতর্কিত বাবরি মসজিদের জমি বাদে নতুন মসজিদ তৈরির জন্য অযোধ্যার ৫ একর জমি দেওয়া হবে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে।

সুপ্রিম কোর্টের রায়ে বলা হয়েছে, ১৮৫৫ সাল পর্যন্ত প্রমান পাওয়া যায় যে হিন্দুরা ওই স্থানের অন্দরেও প্রবেশ করেছে। ১৮৫৬ পর্যন্ত বাবরি মসজিদে নামাজ পড়ার কোনও প্রমাণ পাওয়া যায় না। পরবর্তীকালে প্রার্থনার জন্য ব্যবহার করা হতো সেই মসজিদ।

Related posts

Close