দেশ

কাশ্মীরি পণ্ডিতদের রক্ষা করেছেন মোদীজি, চুমু খেয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ প্রবাসী ভারতীয়দের..


জম্মু-কাশ্মীর থেকে অনুচ্ছেদ 370 ধারা বাতিলের পর থেকে দেশজুড়ে প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন মোদীর 2.0 এর সরকার। শুধু দেশজুড়ে নয় বিদেশে ও এই বিষয়ে কেন্দ্রের প্রশংসা শোনা যাচ্ছে তবে তারই মধ্যে কিছুজন উল্টো শুর ও গায়ছেন জম্মু- কাশ্মীর থেকে 370 ধারা বাতিল কে নিয়ে।অন্যদিকে পাকিস্তান বহু চেষ্টা করার পরও ভারতের প্রতিচ্ছবি খারাপ করতে পারেনি বিশ্বের অন্যান্য দেশ গুলির কাছে। তবে যেমন কি আমরা জানি গত শনিবার দিন আমেরিকার হিউস্টনে পৌঁছে গিয়েছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

আর এবার সেখানে গিয়েই কাশ্মীর থেকে 370 ধারা বাতিলের জন্য উষ্ণ অভ্যর্থনা পেলেন প্রবাসী কাশ্মীরি পণ্ডিতদের থেকে প্রধানমন্ত্রী। জম্মু-কাশ্মীরের গত 70 বছর ধরে চলা নিয়মকে একলহমায় বাতিল করার জন্য সাধুবাদ পেলেন তিনি। আজ রবিবার দিন প্রধানমন্ত্রী আমেরিকায় বসবাসকারী কাশ্মীরি পণ্ডিতদের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে দেখা সাক্ষাৎ করেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

আর সেই সময় সৌজন্য বিনিময়ের ফাঁকে তার হাতে চুমু খেয়ে কাশ্মীর থেকে ধারা 370 বাতিল করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানান এক কাশ্মীরি পণ্ডিত যার নাম সুরিন্দর কল। এদিন এই কাশ্মীরি পণ্ডিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বলেন সাত লক্ষ কাশ্মীরির পক্ষ থেকে আমরা আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই। এই দিন মোদীজি কাশ্মীরে পন্ডিত সম্প্রদায়ের সঙ্গে বিভিন্ন আলোচনা করার থাকে সবার সাথেই ‘নমস্তে শারদে দেবী’ শ্লোক পাঠও করেন।

তার সাথে সাথেই তিনি প্রতিনিধিদলের সদস্যদের সমবেদনা জানিয়ে বলেন আপনারা অনেক কষ্ট করেছেন আসুন এবার আমরা সবাই মিলে নতুন কাশ্মীর তৈরি করি। আর তারপরই ওই প্রবাসী কাশ্মীরি সুরিন্দর কল বলেন ঐতিহাসিক ওই সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য সারা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা সাত লাখ কাশ্মীরী পক্ষ থেকে আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।তার সাথে তিনি বলেন কাশ্মিরকে শান্তিপ্রিয় ও উন্নয়নমুখী করে তোলার জন্য আমাদের সম্প্রদায় সরকারকে সব রকম ভাবে সাহায্য করতে ইচ্ছুক। সেই একই বক্তব্য প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি ও তুলে ধরেন সেই আলোচ্য সভায়।

https://platform.twitter.com/widgets.js

এই বিষয় নিয়ে প্রবাসী কাশ্মীরিরা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে একটি স্মারকলিপিও জমা দিয়েছে। এবং তিনি তা সাদরে গ্রহণ ও করেছেন। তবে রবিবার দিন সকালে এই প্রবাসী কাশ্মীরের পন্ডিতদের সাথে ছিলেন শিখ সম্প্রদায় ও বেহারা সম্প্রদায়ের মানুষজন ও।আর এই দিন এই সকল সম্প্রদায়ের মানুষেরা মিলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার জন্য অসংখ্য অভিনন্দন জানান পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয় নিয়েও স্মারকলিপিও জমা দেন নরেন্দ্র মোদীর কাছে।

Related posts

Close