দেশ

এবার চন্দ্রযান 2 এর থেকেও আগামী বছরে আরও বড় লক্ষ্য ‘গগনযান’ অভিযানে নেমে পড়ল ইসরো


শেষ পর্যন্ত ইসরো চন্দ্রযান 2 এর ল্যান্ডার বিক্রমের সাথে কোন যোগাযোগ করতে পারল না। 14 দিনের মধ্যে ল্যান্ডার বিক্রমের সাথে যোগাযোগ স্থাপন হওয়ার ক্ষীন আশা ছিল। সেটিও শেষ হয়ে গেল। চাঁদের দক্ষিণ মেরুর রহস্য ভেদ করার জন্য ইসরোর তরফ থেকে মহাকাশযান পাঠানো হয়েছিল চাঁদে। প্রসঙ্গত সফট ল্যান্ডিংয়ের কিছুক্ষণ আগেই ল্যান্ডার বিক্রমের সাথে যোগাযোগ হারিয়ে ফেলে ইসরো। এরপর ল্যান্ডার বিক্রমের খোঁজ পাওয়া গেলেও তার সাথে আর যোগাযোগ স্থাপন করা সম্ভব হয়নি।

এ প্রসঙ্গে ইসরোর প্রধান কে সিভান বলেন, চন্দ্রযান টু-এর অর্বিটার খুব ভালো কাজ করছে। শুধু তাই নয় এর প্রতিটি যন্ত্র ভালোভাবে কাজ করছে। কিন্তু একটি সমস্যা যে আমরা ল্যান্ডার এর সাথে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারছি না। একই সঙ্গে ইসরোর প্রধান আরো বলেন যে, এখন আমাদের প্রধান কাজ হল ল্যান্ডার বিক্রমের সাথে আসলে কি হয়েছিল সেটি কে খুঁজে বার করা। এরপর আমাদের অগ্রাধিকার হলো গগনযান(GAGANYAAN)।

ইতিহাস ধুয়ে ফেলার মাত্র কয়েক কিলোমিটার আগে সফ্ট ল্যান্ডিং ব্যর্থ হয় এবং বিক্রমের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এখনই ইসরোর সামনে প্রধান লক্ষ্য হলো গগনযান। এতো সহজে ইসরো যে হাল ছেড়ে দেয়নি তার ইঙ্গিত তারা এর দ্বারাই দিয়েছে। সম্পূর্ণ ভেস্তে যায় নি চন্দ্রযান-2 মিশন। এরপর গগনযানে করে ভারতীয় মহাকাশচারীরা পাড়ি দেবেন মহাকাশে। ইসরো সুত্রে খবর পাওয়া গেছে গগনযাত্রার জন্য 12 জন পাইলটকে বেছে নিয়েছে তারা।

এরপরে সবারই মনে একটাই প্রশ্ন, এই মিশনটি আসলে কি? এর সঙ্গে আদেও কি চন্দ্রযান-2 এর কোন সম্পর্ক রয়েছে? এ সম্পর্কে ইসরো বলেছেন দুটি একেবারেই স্বতন্ত্র মিশন। তাদের কথায় 2004 সাল থেকে এ নিয়ে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে ইসরো। এই প্রস্তুতির শুরুতেই ইসরোর পরিকল্পনা কমিটির কাছে কোনো সময়সীমা ছিল না। তবে 2018 সালের স্বাধীনতা দিবসে দেশের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেন যে, 2022 সালের মধ্যে মহাকাশে যাবে ভারত।

এবার আপনাদের গগনযাত্রা কি সে সম্পর্কে কিছু তথ্য দেবো। গগনযাত্রা হলো একটি ভারতীয় মানববাহী মহাকাশযান। এর সাথে এটি হিউম্যান স্পেসফ্লাইট প্রোগ্রামের অংশ। ইসরো তথ্য অনুসারে এই মহাকাশযানটি সর্বোচ্চ তিন জনকে বহন করার জন্য বানানো হয়েছে। প্রথম মানব অভিযানে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা অর্থাৎ ইসরো 3.7 টনের ক্যাপসুলটি তিনজন ব্যক্তিকে নিয়ে মহাকাশে আরোহন করে 7 দিনে 400 কিলোমিটার উচ্চতায় পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করবে।

Related posts

Close