রাজনীতি

১৯টি সরকারি সংস্থা বন্ধ করে দিতে চলেছে বিজেপি সরকার , এর পরেও কি খাল কেটে কুমির আনবে বাংলার মানুষ ?


ওয়েব ডেস্ক ২৬শে  জুন ২০১৯:মোদীজির “আচ্ছে দিন আনেওয়ালে হে ” জুমলা ছাড়া কিছুই ছিলনা । বছরে ২ কোটি বেকারকে চাকরি দেওয়ার কথাও ভাওতা ছাড়া কিছুই নয় , শুধু লক্ষীর ওপর ভর করেই দ্বিতীয় দফায় বিজেপির দিল্লির মসনদে ফিরে আসা , অন্তত অনেক ভারতীয়রই এই রকম মত। তার মধ্যেই  ১৯টি বড় সরকারি সংস্থা বন্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে মোদী সরকার। যার মধ্যে এইচএমটি ওয়াচ লিমিটেড, হিন্দুস্থান কেবলস, তুঙ্গভদ্রা স্টিল প্রোডাক্টস লিমিটেড, ইন্ডিয়ান ড্রাগসের মত বড়ো সংস্থাও রয়েছে।

জানা গিয়েছে, মূলত লোকসানে চলার কারণেই বড় সরকারি সংস্থাগুলি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নরেন্দ্র মোদীর সরকার। মঙ্গলবার লোকসভায় এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। যদিও সরকার এখনও পাকাপাকিভাবে বিষয়টি ঘোষণা করেনি। এক কংগ্রেস সাংসদের প্রশ্নের জবাবেই একথা জানিয়েছে। মঙ্গলবার লোকসভার অধিবেশনের সময় এক কংগ্রেস সাংসদ প্রশ্ন করেছিলেন, লোকসানে চলা সংস্থাগুলি নিয়ে কেন্দ্র সরকার কী পদক্ষেপ করতে চলেছে। ওই সংস্থাগুলি কি বন্ধ করে দেওয়া হবে নাকি বেসরকারিকরণ করা হবে? তারই জবাবে ১৯টি সংস্থার নাম করে সেগুলি বন্ধ করে দেওয়ার পরিকল্পনার কথা জানায় নরেন্দ্র মোদীর সরকার। এই সংস্থাগুলি কতদিন ধরে লোকসানে চলছে, বর্তমানে সংস্থাগুলির কী অবস্থা- তাও বিশদে ব্যাখ্যা করে সরকার। তবে সংস্থাগুলি বন্ধ হলেও সেগুলির কর্মীদের জন্য কী পদক্ষেপ করা হবে সে ব্যাপারে সরকার কিছু জানায়নি। রুগ্ন শিল্পকে যদি চাঙ্গা না করতে পারল কেন্দ্রীয় সরকার , তাহলে আর কিই বা করল ? প্রশ্ন উঠছে এটাই । যে দেশে আই আই এমের মতো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আছে ,সে দেশের সরকার ১৯টি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বন্ধ করে দেওয়ার পরিকল্পনা করছে , ভাবা যাই ? আর বাংলার মসনদে যদি ের আসে কি হবে ? 

Related posts

Close